শেষ হলো লালন শাহের ১২৯ তম তিরোধান দিবস

মরমী সাধক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহ’র তিরোধান দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত স্মরণোৎসব শেষ হচ্ছে আজ। নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে শেষ হবে সাধুসঙ্গ ও বাউলদের এই মিলনমেলা। নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে লালনের মানবতা ও অহিংসার বাণী মানুষে মানুষে ছড়িয়ে দেয়ার প্রত্যয়ে আজ ধাম ছাড়বেন সাঁইজীর অনুসারিরা।

সাঁইজীর ধামে গুরু শিষ্যদের অধিবাস যাপন, বাল্যসেবা, পূর্ণসেবাসহ নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে আজ ছেঁউড়িয়ার বাতাসে বাঁজতে বিচ্ছেদের সুর।

সাঁইজির অগনিত শিষ্য, অনুসারী ও ভক্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আবার ফিরে যাবেন আপন ঠিকানায়। পার্থিব যন্ত্রনা ভুলে বাউলিআনায় আধ্যাত্মিক মুক্তির স্বাদ নিতেই ছেঁউড়িয়ায় আসেন বাউলরা সাধকরা।
ছোট-বড় কোনো বিভেদ নেই সাঁইজির ভক্ত-অনুসারীদের মধ্যে। সাধু-সন্ন্যাসী আর ভক্তরা সাঁইজির গানেই ডুবে ছিলেন এই তিন দিন।
এদিকে, তিরোধান উৎসবকে ঘিরে মরা কালী নদীর পাড়ে বসেছে গ্রামীণ মেলা। মূল উৎসব শেষ হলেও মেলা চলবে আরো কয়েক দিন।

আরো জানতে ভিডিও লিংকে ক্লিক করুন: ভিডিও লিংক

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।